শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

admin | আন্তর্জাতিক

প্রকাশ: শুক্রবার, আগস্ট ১৪, ২০২০

ইসরায়েলের সঙ্গে বিতর্কিত চুক্তির জেরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ভাবছে তুরস্ক।

এ বিষয়ে এরদোগান বলেন, আমরা সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত করতে পারি। অথবা আমাদের রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করতে পারি।

শুক্রবার ইস্তান্বুলে জুমার নামাজের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিতর্কিত ওই চুক্তিকে সমর্থন জানিয়েছে মিসর।

এদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজকে ইসরায়েলে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিভেন রিভলিন। আরব এ দেশটির সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের চুক্তির পর এ আমন্ত্রণ জানানো হয়।

শুক্রবার ইসরায়েলের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করেছে। খবরে বলা হয়, ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট আবধাবির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন যায়েদ আল নাহিয়ানকে ইহুদীবাদী ওই রাষ্ট্রে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

এদিকে ইসরায়েলি প্রেসিডেন্ট রিভলিন এক টুইটবার্তায় বলেন, এই চুক্তি ইসরায়েল ও আরব আমিরাতের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি আমাদের জন্য নতুন এক সম্ভাবনার মাইলফলক। আমি আশা করি আমাদের দুই দেশ ও জনগণের মাঝেও পারস্পরিক বিশ্বাস ও আস্থা আরও দৃঢ় হবে।

সূত্র: আনাদলু এজেন্সি

Ad The It King