1. techostadblog@gmail.com : Fit It : Fit It
  2. mak0akash@gmail.com : AL - AMIN KHAN : AL - AMIN KHAN
  3. admin@sangbadbangla.com : admin :
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০২:৪০ অপরাহ্ন

৫ কোটি টাকায় যেভাবে হলো বাংলাদেশি সমকামী মুসলিম মেয়ের বিয়ে! (ভিডিও)

Reporter Name
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৪২৪ বার পঠিত

সম্প্রতি এক বাংলাদেশি মুসলিম সমকামী নারী বিয়ে করেছেন আরেক নারীকে। তাদের বিয়েতে খরচ করা হয়েছে প্রায় পাঁচ কোটি টাকা। এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক পত্রিকা ইত্তেফাক। সেই প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশি ঐ নারীর নাম ইয়াশরিকা জাহরা হক (৩৪)। নিজের পছন্দে তিনি যে নারীকে স্বামী হিসেবে বেছে নিয়েছেন তার নাম এলিকা রুথ কুকলি (৩১)।

ইয়াশরিকাই প্রথম বাংলাদেশি লেসবিয়ান নারী যিনি উত্তর আমেরিকায় আরেক লেসবিয়ান নারীকে বিয়ে করলেন। ইয়াশরিকা জাহরা হক মুসলিম পরিবারের সন্তান। তার বাবার নাম ইয়ামিন হক। আর মা ইয়াসমিন হক। তারা বসবাস করেন যুক্তরাষ্ট্রের সাউথ ডেকটার র‌্যাপিড সিটিতে। ইয়াশরিকা ওয়াশিংটনের জর্জটাউন ইউনিভার্সিটি থেকে গ্রাজুয়েশন শেষ করেছেন। তারপর নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি থেকে আইন বিষয়ে ডিগ্রি নেন। বর্তমানে নিউইয়র্ক সিটির ম্যানহাটনের একটি ল’ ফার্মে কাজ করছেন।

ইয়াশরিকা হক যে তরুণীকে বিয়ে করেছেন তিনি একজন মার্কিন নাগরিক। তিনি কাজ করছেন ম্যানহাটনের একটি অডিওলজিক্যাল সার্ভিস কোম্পানিতে। জানা যায়, ২০১৯ সালের ৯ জুন ব্রুকলিনে একটি পার্টি হলে দুই নারী ইয়াশরিকা ও এলিকা রুথ কুকলির বিয়ে অনুষ্ঠান হয়। যা পুরোপুরি বাঙালি আমেজে হয়। বাঙালি সংস্কৃতির প্রায় সব কিছুই ছিলো এই বিয়েতে। অতিথিরা প্রায় সকলেই ছিলেন সমকামী।

বিয়ের অনুষ্ঠানে ইয়াশরিকার পরনে ছিল লাল রঙের বেনারসি শাড়ি। ছিল সোনার গহনা। দুহাতে ছিল মেহেদি। অপরদিকে এলিকা রুথের পরনে ছিল শেরওয়ানি। এই বিয়েতে খরচ হয়েছে প্রায় ৫ কোটি টাকা। এর আগে ২০১৯ সালের ৭ জুন নিউইয়র্ক সিটির ম্যারিজ রেজিস্টার অফিসে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেন ইয়াশরিকা।

২০১৫ সালে মার্কিন তরুণী এলিকা রুথ কুকলির সঙ্গে প্রথম দেখা হয় ইয়াশরিকার। সেখান থেকেই ধীরে ধীরে প্রেম-ভালোবাসা। আর সেই ভালোবাসা থেকেই তাদের বিয়ে। ইয়াশরিকা জাহরা হক বলেন, ২০১৫ সালে ব্রুকলিনের একটি এপার্টমেন্টে পার্টি দিয়েছিলাম। সেখানেই টেক্সাস থেকে এসেছিলেন এলিকা। সে সময় আমার মনে হয়েছে, কুকলি আমাকে তার নিজের মধ্যে চুম্বকের মতো আকৃষ্ট করেছেন। তখন আমার মনে হয়েছিল তার কাছেই নিজেকে সঁপে দেওয়া যায়। সে সময় আমি সিঙ্গেল ছিলাম। এলিকাও সিঙ্গেল ছিল।

বাংলাদেশি এই লেসবিয়ান আরও বলেন, এরপর আরেকটি পার্টিতে এলিকাকে আমন্ত্রণ জানাই। আরও গভীরভাবে তাকে পর্যবেক্ষণ করতে থাকি। শেষপর্যন্ত আমি তাকে বিয়ে করলাম যে কিনা মানবিক গুণসম্পন্ন একজন মানুষ। এলিকা রুথ কুকলি বলেন, পার্টিতে সেই রাতে আমরা এক সঙ্গে ছিলাম। আমার মনে হয়েছে ইয়াশরিকা খুবই মেধাবি। আমি আশা করি সে আমার পাশে থাকবে। সূত্র: ইত্তেফাক

এই পোস্টটি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০১৯, সংবাদ বাংলা
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: The IT King