মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১

admin | ক্রিকেট খেলাধুলা

প্রকাশ: সোমবার, ডিসেম্বর ২, ২০১৯

পারফর্ম্যান্স বাড়ানোর জন্যে অনেক খেলোয়াড় নানারকম নিষিদ্ধ ড্রাগ নেন মাঝে মাঝে। এই কাজকে বলা হয় ডোপিং। বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে ডোপিংয়ের ভয়াল থাবা কখনো পড়ে নি। কিন্তু এবার জাতীয় ক্রিকেট দলের পাইপলাইনে থাকা পেসার কাজী অনিক ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়েছেন। রবিবার (১ ডিসেম্বর) এই খবর জানা গেছে। এই অপরাধের জন্যে অন্তত দুই বছর নিষিদ্ধ হবে তিনি। তবে মাত্র বিশ বছর বয়সী এই পেসার কী ধরনের ড্রাগ নিয়েছেন বা কবে থেকে নিচ্ছেন এমন বিস্তারিত কিছু জানা যায় নি।

এ প্রসঙ্গে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল অবেদিন নান্নু বলেন, ‘আমরা জানি ও ডোপ টেস্টে পজিটিভ। একারণেই ও আমাদের কোন পরিকল্পনায় নেই। তবে এখনই সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। কেননা বিসিবির মেডিকেল বিভাগের প্রতিবেদন হাতে পাইনি। হাতে পেলে মিটিং করে ওর নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। বাইলজ অনুযায়ী ডোপ পজিটিভ একজন ক্রিকেটার ২ থেকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন। ওর ক্ষেত্রেও তাই হবে।’

Ad The It King