মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১

admin | অন্যান্য ক্যাম্পাস জাতীয় শিক্ষা

প্রকাশ: বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগ দাবিতে টানা ষষ্ঠ দিনেও মতো অব্যাহত আছে আন্দোলন ও আমরণ অনশন কর্মসূচি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা নিয়ে বিভিন্নধর্মী মিছিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রীরা। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে  শুরু হয়ে জয় বাংলা চত্বর, একাডেমিক ভবন সংলগ্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে।

যমুনা টিভিতে সাক্ষাৎকারে শিক্ষার্থীদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় এই ঝাড়ু মিছিলের আয়োজন করা হয়।  

ঝাড়ু মিছিলের নেতৃত্ব দেওয়া এক ছাত্রী জানান, তার এ বক্তব্যে তিনি আবারও প্রমাণ করলেন, তিনি আমাদের অভিভাবক হওয়ার কোনো যোগ্যতা রাখেন না। আমরা এ ভিসির পদত্যাগ চাই।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে উপাচার্যের পদত্যাগ চাওয়ার কারণ হিসাবে তার বিরুদ্ধে ভর্তিতে দুর্নীতি, নিয়োগে অনিয়ম, যৌন হয়রানিসহ ১৪ টি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ এনে প্রেস ব্রিফিং করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। 

অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছে যৌন হয়রানি, শিক্ষক ও অন্যান্য কর্মচারীদের নিয়োগে অনিয়ম এবং ক্যাম্পাসে শহীদ মিনার ও বঙ্গবন্ধুর মুরাল নির্মাণে উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি।

দুপুর ২ টার দিকে আন্দোলনরত অবস্থায়  মাহমুদ হাসান  ও সীমান্ত নামের শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাদের গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। এদিকে সকাল থেকে গান কবিতা আবৃতি করে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি করেন শিক্ষার্থীরা।

গত শনিবার আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও কর্তব্যরত ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের ওপর ন্যক্কারজনক হামলার প্রতিবাদে ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার দুপুর ১ টার দিকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতি । 

সন্ধ্যা ৬ টার দিকে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে ঝাড়ু মিছিল বের করেন আন্দোলনরত একাংশ শিক্ষার্থী। এছাড়াও আন্দোলনের অংশ হিসাবে প্রতি রাতে মশাল মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা ।

উল্লেখ্য, বুধবার রাত ৯ টায় উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে প্রথম আন্দোলন শুরু হয় এবং গত বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা থেকে তারা একটানা ষষ্ঠদিনের মতো আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে।

বর্তমানে প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান করে অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে। দিনরাত্রি লাগাতার এ কর্মসূচি চলবে বলে জানান আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

Ad The It King