1. techostadblog@gmail.com : Fit It : Fit It
  2. mak0akash@gmail.com : AL - AMIN KHAN : AL - AMIN KHAN
  3. admin@sangbadbangla.com : admin :
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০২:৫৩ অপরাহ্ন

মিন্নির ছবি তোলা বোরকা পরা সেই নারীকে খুঁজছে পুলিশ!

Reporter Name
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ৫১২ বার পঠিত

বরগুনায় আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অভিযোগপত্র শুনানির দিন ছিল বুধবার। ওই দিন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণে বাড়তি নিরাপত্তা ছিল। এত নিরাপত্তার মধ্যেও বোরকা পরা এক ব্যক্তিকে ছবি তুলতে দেখা গেছে। কে এই ব্যক্তি তা নিয়েই আলোচনা ও রহস্য চলছে।

মিন্নির বাবা তার মেয়ের নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। পুলিশের নিরাপত্তা বাহিনীও জানেন না কে এই ব্যক্তি। তবে বোরকা পরিহিত ওই ব্যক্তিটি নারী নয় সে বিষয়ে মত দিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। তারা বলেন, কোনো নারী পেছন থেকে ধাক্কাধাক্কি করে এভাবে সামনে এসে ছবি তুলবে না। যদিও সে বোরকা ও পায়ে মোজা পরে ছিল। তবে তার অবয়বেই বোঝা যায় সে একজন পুরুষ।

বুধবার সকালে অভিযোগপত্রের শুনানি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও মামলার মূল নথি বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে থাকায় শুনানি শুরু হতে বিলম্ব হয়। এ অবস্থায় বেলা ১১টার দিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী অভিযোগপত্র শুনানির জন্য দুপুর ২টায় নির্ধারণ করেন।

এর আগে সকাল ৯টার দিকে মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের সঙ্গে মোটরসাইকেলে আসেন মিন্নি। এরপর আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার আগ পর্যন্ত বাবার সঙ্গেই আদালতের একটি কক্ষে অবস্থান করেন তিনি।

আদালত থেকে বের হয়ে আদালত প্রাঙ্গণে বাবার মোটরসাইকেলে ওঠার আগ পর্যন্ত মিন্নির ছবি সংগ্রহ করেন সংবাদকর্মীরা। তখন মিন্নিকে দেখতে জড়ো হন সাধারণ মানুষও। তবে লোকে লোকারণ্য আদালত প্রাঙ্গণে সাংবাদিকরা যখন ছবি তুলছিলেন তখন ব্যতিক্রমী পোশাকে মোবাইল হাতে মিন্নির ছবি তুলতে হাজির হন এক ব্যক্তি।

সংবাদকর্মী ও উৎসুক মানুষকে ভেদ করে একের পর এক মিন্নির ছবি তুলছেন ওই বোরকা পরা ব্যক্তি। মিন্নি আদালত প্রাঙ্গণে থাকা পর্যন্ত সাংবাদিকদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি করে মিন্নির ছবি তোলেন তিনি। বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ হয় স্থানীয় সাংবাদিকদের।

সর্বাঙ্গ ঢেকে মিন্নির ছবি তোলা ওই ব্যক্তি নারী নাকি পুরুষ এমনটিও বলেছেন কেউ কেউ। তবে ওই ব্যক্তির পরিচয় জানা যায়নি। এমনকি স্থানীয় সাংবাদিক ও মিন্নির পরিবারের সদস্যরাও ওই ব্যক্তিকে চিনতে পারেননি। চিনতে পারেননি পুলিশের নিরাপত্তা কর্মীরা।

আদালতে পেশাগত দায়িত্ব পালনে থাকা কয়েকজন সাংবাদিক বলেন, অভিযোগপত্রের শুনানি থাকায় বুধবার সকাল ৯টার দিকে আদালতে উপস্থিত হন মিন্নি। আদালতের কার্যক্রম শুরু না হওয়ায় এজলাসের পাশের একটি কক্ষে বাবার সঙ্গে বসে থাকেন তিনি। এ সময় হাত-পায়ে মোজা ও বোরকা পরা এক নারী মিন্নির কক্ষের বাইরে ঘোরাফেরা করেন।

মিন্নির বাবা বলেন, এ সময় বিষয়টি আমরা গুরুত্ব দেয়নি। এরপর আদালত প্রাঙ্গণে ছবি তোলার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি করে মিন্নির ছবি তুলেছেন ওই নারী। তাকে দেখে মনে হয়েছে, ‘তিনি নারী নয়, পুরুষ।’

বরগুনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মো. হাসানুর রহমান ঝন্টু বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য বুধবার আমি আদালতে যাই। বোরকা পরা ওই মানুষটিকে দেখে মনে হয়েছে একজন ধার্মিক নারী। কিন্তু মিন্নির ছবি তোলার সময় তিনি যেমন আচরণ করেছেন, তাতে মনে হয়েছে তিনি নারী নয়, পুরুষ। বিষয়টি খুবই সন্দেহজনক। তাই হাত-পা মোজা ও বোরকা পরা ওই মানুষটি কে তা জানা জরুরি।

এ বিষয়ে মিন্নির বাবা মো. মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, আমি যখন মিন্নিকে নিয়ে আদালত থেকে বের হয়েছি, তখন বোরকা পরা ওই মানুষটি মিন্নির কাছে এসে ছবি তোলা শুরু করে। তাকে দেখে ধর্মপ্রাণ নারী মনে হলেও তিনি যেভাবে মিন্নির কাছে এসেছেন, সেটা তার পোশাকের সঙ্গে বেমানান। আদালত প্রাঙ্গণে ওই ব্যক্তির কার্যকলাপ দেখে আমার সন্দেহ হয়েছে।

তিনি বলেন, বোরকা পরা হলেও ওই ব্যক্তি আমার মনে হয়েছে একজন পুরুষ। নারী সেজে আমাদের ক্ষতি করার উদ্দেশ্যে এসেছিলেন কিনা এটা জানা দরকার। পুলিশকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানাই। আমি মিন্নির নিরাপত্তা নিয়ে সংশয়ে আছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বরগুনা সদর থানার ওসি আবীর মোহাম্মদ হোসেন বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। সাংবাদিকদের কাছ থেকে ঘটনাটি শুনেছি। ওই ব্যক্তির বিষয়ে খোঁজ-খবর নেব।

এই পোস্টটি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০১৯, সংবাদ বাংলা
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: The IT King