মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১

admin | Uncategorized

প্রকাশ: শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

বগুড়ার ধুনটে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে তারেক ইসলাম (২০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। শুক্রবার সকালে ওই যুবতী নারী ধর্ষণের অভিযোগে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত তারেক ইসলাম আড়কাটিয়া গুচ্ছগ্রামের মোক্তার ইসলামের ছেলে।

মামলাসূত্রে জানা গেছে, ধুনট উপজেলার আড়কাটিয়া গুচ্ছ গ্রামের জনৈক এক দরিদ্র কৃষকের তরুণী মেয়েকে (১৮) একই গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে তারেক ইসলাম প্রায়ই তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে উত্যাক্ত করতো। কিন্তু তার কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই যুবতীকে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছিল তারেক। এ বিষয়ে তার পরিবারকে জানালে সে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে গত ১৩ আগষ্ট দুপুর সাড়ে ১২টায় বাড়িতে কেউ না থাকায় তারেক ইসলাম ওই যুবতীর ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনাটি কাউকে না বলতে ভয়ভীতি এবং বিয়ের প্রলোভন দিয়ে কৌশলে সটকে পড়ে তারেক। গত ৩০ আগষ্ট তারেক ইসলাম ওই যুবতীর ঘরে ঢুকলে এসময় স্থানীয় লোকজন তারেককে আটক করে পরিবারকে খবর দেয়। পরে তারেকের বাবা-মা ওই ধর্ষিতা নারীর পরিবারের কাছে ৮০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে নিরুপায় হয়ে শুক্রবার সকালে ওই ধর্ষিতা তরুণী বাদী হয়ে তারেক ইসলামকে আসামি করে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করেন। ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, এক তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর প্রধান আসামি ধর্ষক তারেক ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং নির্যাতিত ওই নারীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

Ad The It King