শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১

admin | জনপ্রিয় জাতীয়

প্রকাশ: মঙ্গলবার, আগস্ট ২৭, ২০১৯

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বরাতে আলোচনায় আসা আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিয়ে খুব সমােলোচিত হয়েছেন। বলা চলে এর পর থেকেই তার প্রতি মানুষের আবেগ বা সহানুভূতি সব বানের জলে ভেসে গেছে।

তবে হিরো আলমের প্রতি মানুষের ক্ষোভটা সত্যিকার অর্থে প্রকাশ পায় পরিবারের প্রতি তার দায়হীনতা দেখে। বেশ কিছু গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয় তার উদাসী ও উচ্ছৃঙ্খল জীবন যাপনের খবর। স্ত্রী-সন্তানের প্রতি তার বেখেয়ালি মনোভাব তাকে রাতারাতি হিরো থেকে জিরোতে নিয়ে আসে।

শুধু তাই নয়, কয়েক মাস আগে স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে জেলও খেটেছেন বিতর্কিত হিরো আলম। সেই তিনি এবার মাঠে নেমেছেন পুরুষ নির্যাতনের বিরুদ্ধে।

গত শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ পুরুষ অধিকার ফাউন্ডেশন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচিত হিরো আলম।

নিজের বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘সংগঠনের পক্ষ থেকে আমাকে পুরুষ নির্যাতন আইনের দাবিতে ডাকা মানববন্ধনে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। আমি এই দাবিকে স্বাগত জানিয়েছি। আমি তাদের দাবির সঙ্গে একমত। সেজন্যই রাজপথে নেমে এসেছি।

আমি সকল পুরুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নারী নির্যাতন আইনের অপব্যবহার রোধে এর সংশোধনের দাবিতে এবং পুরুষ নির্যাতন দমন আইনের দাবিতে আন্দোলনের আহ্বান জানাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি হিরো আলম বলছি, নারীদের কাছে জিম্মি না থেকে রাজপথে আসুন। পুরুষ হলে নিশ্চয়ই রাজপথে আসবেন।’

ওই সমাবেশে অন্যান্য বক্তারা বলেন, স্বামীর টাকা আত্মসাৎ করে অনেক নারী পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে চলে যাচ্ছে, এর জন্য কি আইন আছে? এই দেশে নারীদের নিরাপত্তার জন্য আইন আছে কিন্তু পুরুষদের নিরাপত্তার জন্য কোনো আইন নেই কেন? প্রতিনিয়ত ঘরে ঘরে পুরুষেরা মানসিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।

পুরুষদের কান্না লুকিয়ে সব লজ্জা মুছে ফেলে আইনের দাবিতে রাজপথে নেমে আসার আহ্বান জানিয়েছেন বক্তারা।

Ad The It King