শিশু জান্নাতের সঙ্গে পাষণ্ড মায়ের নির্মম কাণ্ড

0
95

রাজধানী ঢাকার গেন্ডারিয়ার স্বামীবাগে জান্নাত নামে ১ বছর বয়সী এক শিশুকে বিষ খাইয়ে হত্যার পর মা সোনিয়া আক্তার (৩০) নিজেও বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।

মঙ্গলবার (২৬ আগস্ট) সকালের দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। পরে অচেতন অবস্থায় মেয়ে ও মা দুজনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক শিশু জান্নাতকে মৃত ঘোষণা করেন। মা সোনিয়া ঢামেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে চিকিৎসাধীন আছেন।

জানা যায়, খুলনার রূপসা উপজেলার আইজগতি গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী সোনিয়া। বর্তমানে ঢাকার গেন্ডারিয়ার স্বামীবাগ এলাকার একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন তারা।

অসুস্থ সোনিয়ার স্বামী আনোয়ার হোসেন বলেন, জান্নাত তাদের একমাত্র মেয়ে। স্ত্রী সোনিয়া গৃহিণী। সিকিউরিটি গার্ডের চাকরি করেন তিনি। সোমবার (২৬ আগস্ট) রাতে তিনি ডিউটিতে ছিলেন।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ অসুস্থ ছিলেন সোনিয়া। এজন্য গত দুই থেকে তিনদিন আগে সোনিয়া তার ছোট ভাই সাদ্দামকে ফোন করে স্ত্রীসহ তাদের বাসায় আসতে বলেন। সাদ্দাম কিছু দিন পরে আসবে জানালে ভাইয়ের ওপর অভিমান করেন সোনিয়া। সেই অভিমান থেকেই সকালে সোনিয়া বাচ্চাকে কীটনাশক জাতীয় কিছু পান করান। এরপর নিজেও পান করেন। পরে তিনি নিজেই ফোন দিয়ে আমাকে বাসায় আসতে বলেন।

তিনি আরও বলেন, বাসায় এসে দেখি দু’জনই ফ্লোরে পড়ে আছে। পরে দ্রুত তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক জান্নাতকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, জান্নাতের মরদেহ ঢামেকের মর্গে রাখা হয়েছে। আর তার মা সোনিয়া আক্তার মেডিসিন ওয়ার্ডের ৮০২ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here