ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে ইউরোপার ফাইনালে সেভিয়া

0
64

ইউরোপা লীগের সেমিফাইনালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-১ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠে গেল স্পেনের সেভিয়া। এই মৌসুমে আরো একবার সেমিফাইনাল থেকে বাদ পড়ল ইউনাইটেড, সেজন্য অবশ্য নিজেদেরই দায়ী করতে পারে তারা।

জার্মানির কোলনে রবিবার রাতে প্রথম সেমিফাইনালে ২-১ গোলে জিতেছে প্রতিযোগিতায় রেকর্ড পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা। ব্রুনো ফের্নান্দেস ইউনাইটেডকে এগিয়ে নেওয়ার পর সমতা টানেন সুসো। শেষ দিকে ব্যবধান গড়ে দেন লুক ডি ইয়ং।

শেষ চারের আরেক ম্যাচে সোমবার মুখোমুখি হবে ইন্টার মিলান ও শাখতার দোনেৎস্ক। তাদের মধ্যে জয়ী দলের বিপক্ষে আগামী শুক্রবার শিরোপা লড়াইয়ে নামবে হুলেন লোপেতেগির দল।

চলতি মৌসুমে লিগ কাপ ও এফএ কাপের পর ইউরোপা লিগ-তিনটি প্রতিযোগিতারই সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিল উলে গুনার সুলশারের দল।

ম্যাচের নবম মিনিটে সফল স্পট কিকে ইউনাইটেডকে এগিয়ে নেন ফের্নান্দেস। ডি-বক্সে মার্কাস র‌্যাশফোর্ড ফাউলের শিকার হলে মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলে নিজেদের ২২তম পেনাল্টিটি পায় প্রিমিয়ার লিগের দলটি।

২০১৬-১৭ আসরের চ্যাম্পিয়নদের এগিয়ে যাওয়ার স্বস্তি অবশ্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ২৬তম মিনিটে সেভিয়াকে সমতায় ফেরান সুসো। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের নিচু ক্রসে কাছের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার।

বিরতির আগে র‌্যাশফোর্ড ও ফের্নান্দেসের দুটি প্রচেষ্টা রুখে দেন সেভিয়ার গোলরক্ষক। দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম দশ মিনিটে আরও অন্তত দুটি দারুণ সেভ করেন তিনি।

এতগুলো সুযোগ হারানোর পর ৭৮তম মিনিটে উল্টো গোল খেয়ে বসে ইউনাইটেড। হেসুস নাভাসের ক্রসে খুব কাছ থেকে জয়সূচক গোলটি করেন ডাচ ফরোয়ার্ড ডি ইয়ং।

রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলের দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠল সেভিয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here