1. techostadblog@gmail.com : Fit It : Fit It
  2. mak0akash@gmail.com : AL - AMIN KHAN : AL - AMIN KHAN
  3. admin@sangbadbangla.com : admin :
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫৬ পূর্বাহ্ন

পারিশ্রমিক কমাতে রাজি?

Reporter Name
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৬৭ বার পঠিত

সব ইন্ডাস্ট্রিই চলে একটি নিয়মের আবর্তে। একটির লাভের টাকা অন্যটিতে বিনিয়োগ করা হয়। গত সাত মাস সিনেমা হল বন্ধ থাকায় ছবি রিলিজ় হয়নি, ফলে প্রযোজকের টাকা ছিল আটকে। বলিউড ওটিটি-তে ছবি ছেড়ে দিয়ে কিছু টাকা ঘরে তুলতে পেরেছে। টলিউডের সে ভাঁড়ারও ভরেনি। তাই প্রযোজকের পকেটে টান পড়া আশ্চর্যের নয়। অতএব টান পড়েছে বাজেটেও। এ সব ক্ষেত্রে প্রথম কোপটা সাধারণত অভিনেতাদের উপরে পড়ে। কারণ একটা বড় অংশের বাজেট এঁদের পিছনেই ধার্য করা হয়। বলিউডে শাহিদ কপূর, বরুণ ধওয়নেরা ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন যে, তাঁরা পারিশ্রমিক কমাতে রাজি। টলিউডেরও অনেক অভিনেতা এতে সায় দিচ্ছেন। তবে চিন্তাও রয়েছে, কারণ একবার কম টাকায় রাজি হলে, সেটাই না চলতে থাকে!

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মতে, কাজ বন্ধ রাখলে চলবে না। তার জন্য যদি খানিকটা আপস করতে হয়, ইন্ডাস্ট্রির স্বার্থে সেটা করা উচিত। ‘‘পারিশ্রমিকের প্রসঙ্গে বলিউডের সঙ্গে আমাদের তুলনা করা উচিত নয়। তবে এখানেও বড় তারকাদের পারিশ্রমিক বেশি। সেই টাকার খানিকটা অংশ কমিয়ে, তা যদি অন্য কোনও খাতে খরচ করা হয়, তাতে আপত্তির কিছু দেখছি না। এটা সাময়িক পরিস্থিতি। তবে প্রযোজকদেরও মাথায় রাখতে হবে, এখানে কোনও তারকাই বিরাট অঙ্কের পারিশ্রমিক পান না। তাই বাজেট তৈরির সময়ে সব দিক বজায় রেখেই পরিকল্পনা করতে হবে,’’ বক্তব্য প্রসেনজিতের। পারিশ্রমিক কমানোর ব্যাপারে সায় দিচ্ছেন দেবও। তাঁর কথায়, ‘‘কাজ বন্ধ থাকার সময়ে আমার অফিসের কর্মীদের টাকা কমাতে বাধ্য হয়েছিলাম। এখন আমাকে কেউ পারিশ্রমিক কমাতে বললে রাজি হতে হবে। পরিস্থিতি ঠিক না হওয়া পর্যন্ত অনেক কিছু মেনে নিতে হবে।’’

অতিমারি পরিস্থিতিতেই পরপর দু’টি ছবির শুটিং করলেন মিমি চক্রবর্তী। তাঁর মতে, ইন্ডাস্ট্রিকে বাঁচানোর কাজটা সবচেয়ে বেশি জরুরি। বলছিলেন, ‘‘টাকার অঙ্ক কমাতে আপত্তি নেই। কিন্তু তার পাশাপাশি এটাও ভাবতে হবে, তারকাদেরও টাকার প্রয়োজন আছে। তাঁদেরও সংসার চালাতে হয়। তাই সব দিক ভেবেই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।’’ আবীর চট্টোপাধ্যায় এর মধ্যে ছোট পর্দার রিয়্যালিটি শো করলেন। দীপাবলিতে তাঁর ছবি ‘সুইৎজ়ারল্যান্ড’ এবং ডিসেম্বরে ‘মায়াকুমারী’ মুক্তি পাওয়ার কথা। দুটো ছবির কাজই অতিমারির আগে সেরে ফেলেছিলেন। আবীর বলছিলেন, ‘‘এখন পরিস্থিতি এমনই যে আগাম কোনও বিষয়ে কথা বলা সম্ভব হচ্ছে না। তাই পারিশ্রমিক কমানোর প্রসঙ্গ এলে ভেবে দেখব। আমরা সকলে মিলেই তো একটা ইন্ডাস্ট্রি, তাই বিপদের দিনে একে অপরের পাশে দাঁড়ানোটাই আসল।’’ নুসরত জাহান যেমন এর মধ্যে পারিশ্রমিক কমিয়েছেন বলে খবর। সম্প্রতি তিনি দু’টি ছবির শুটিং করেছেন। সেখানে আগের তুলনায় পারিশ্রমিক অনেকটাই কম নিয়েছেন নায়িকা। নভেম্বর মাসে নতুন ছবি ‘তীরন্দাজ শবর’-এর শুটিং করতে চলেছেন অরিন্দম শীল। জানালেন, ক্যামেলিয়া প্রোডাকশন বাজেট কাটের কোনও অনুরোধ রাখেনি। ‘‘শিল্পীদের ওইটুকু টাকা কমিয়ে আদপে কোনও লাভ হয় না। বাজেট প্ল্যানিংটাই আসল,’’ মন্তব্য অরিন্দমের।

সম্প্রতি দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে অভিনেতা ও টেকনিশিয়ানদের চিঠি দিয়ে পারিশ্রমিক কমানোর আর্জি জানিয়েছেন প্রযোজকেরা। সেই আর্জি মেনে কলাকুশলীরা কাজও করছেন। টেলিভিশনে যেমন অনেক শিল্পীই আগের চেয়ে কম টাকায় কাজ করছেন। এ ক্ষেত্রে প্রযোজক-শিল্পীর পারস্পরিক সম্পর্কের উপরে বিষয়টি নির্ধারিত হচ্ছে। ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর, এক বড় প্রযোজনা সংস্থা তাদের ছবি-সিরিজ়ের বাজেট নিয়ন্ত্রণে রাখার বিষয়ে কড়া নির্দেশ দিয়েছে এবং শিল্পীদের কাছে ‘অনুরোধ’ও গিয়েছে কম পারিশ্রমিক নেওয়ার। অভিনেতারাও নিমরাজি হয়েছেন। কে-ই বা চান বিবাদে যেতে! তাই সরাসরি কেউ এ বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি নন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিনেত্রী বললেন, ‘‘এর আগে যা পারিশ্রমিক পেতাম তার চেয়ে বেশ খানিকটা কমেই কাজ করছি। কম টাকায় দু’-একবার কাজ করতে আপত্তি নেই। কিন্তু অতিমারিকে ছুতো করে প্রযোজকেরা যেন সুবিধে না নেন, সেটাই ভাবনা।’’

এই পোস্টটি সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০১৯, সংবাদ বাংলা
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: The IT King