শনিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২১

admin | অন্যান্য ক্যাম্পাস জাতীয় লাইফস্টাইল শিক্ষা

প্রকাশ: শুক্রবার, এপ্রিল ২৪, ২০২০

“কৃষকের পাশে জেলা ছাত্রলীগের, সাউথ-ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সা:সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম নিশাত”

সংবাদবাংলা প্রতিনিধি:– বোরো ধানের বাম্পার ফলনে হাসি ফুটেছে ময়মনসিংহের সুতিয়াখালী এলাকার কৃষকদের মুখে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে ধান কাটা শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় এগিয়ে এসেছেন স্থানীয় ছাত্রললীগের নেতাকর্মীরা।

জাহিদুল ইসলাম নিশাত বলেন বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী নিয়ে মাঠে ধান কাটার কাজ শুরু করি সাথে থেকে উৎসাহ দেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাজাউল হাসান বাবু ভাই এবং সাথে ছিল চরপাড়া ছাত্রলীগের হাসনাত হোসাইন শাওন, আরাফাত ও জেলা ছাত্রলীগের রিজভী রেজুয়ান মারুফ সহ অনেক ছোট ভাইরা সাউথ-ইষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাবেক সদস্য জাতীয় নির্বাচন ও সমন্বয় কমিটি ( ময়মনসিংহ-৪) জাহিদুল ইসলাম নিশাত বলেন সামাজিক দূরত্ব মেনে ১৫-২০ জন নেতাকর্মী এক কৃষকের জমির পাকা ধান কেটে বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিয়েছি।

সাউথ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

‘জাহিদুল ইসলাম নিশাত ‘আরও বলেন ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুসারে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। বৃহস্পতিবার থেকে তারা বিভিন্ন ক্ষুদ্র চাষিদের ধান কেটে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার কাজ শুরু করেছেন। যেসব চাষি ধানকাটার শ্রমিক পাচ্ছেন না, তাদের সহযোগিতায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এগিয়ে যাবে বলেও জানান তিনি।’ উপকারভোগী কৃষক জানান, ‘শ্রমিক সংকটের কারণে তিনি ধান কাটতে পারছিলেন না। ফলে পাকা ধান জমিতেই নষ্ট হবার আশঙ্কা ছিল।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এগিয়ে এসে তার জমির ধান কেটে ঘরে এনে দিয়েছেন। এজন্য তিনি জাহিদুল ইসলাম নিশাত সহ সকলকে ধন্যবাদও জানান।’ জাহিদুল ইসলাম নিশাত বলেন এভাবেই সাধারণ মানুষের পাশে থেকে এই দেশের সকল ক্রান্তিলগ্নে এভাবেই ছাত্রলীগের কর্মীরা ঢাল হয়ে দাড়ায় জনতার পাশে, আর্ত মানবতার সেবায় ছাত্রলীগের ছেলেরা পিছপা হয় না।জাহিদুল ইসলাম নিশাত সকলকে যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে আসার জন্য আহবান জানায়।